হিসাব সমীকরণের উপাদানের প্রভাব

সকল আয় সমূহের হিসাব সমীকরণে উপাদানের প্রভাব
রহিম এর নিকট পণ্য বিক্রয় ৩০০০ টাকা।
রায়হান এর কাছে নগদে পণ্য বিক্রয় ৪০০০ টাকা।
পণ্য বিক্রয় করে চেক প্রাপ্তি ১৬০০ টাকা।
বিনিয়োগের সুদ প্রাপ্তি ২০০০ টাকা।
পণ্য বিক্রয় ৭০০০ টাকা, যার মধ্যে ৫০% টাকা চেকে। অবশিষ্ট টাকা বাকি রয়ে গেল।
কমিশন প্রাপ্তি ৮০০ টাকা।
শিক্ষানবিশ সেলামি ১৩০০ টাকা।
ব্যবসায়ে ব্যবহিত মোটরসাইকেল বিক্রয় ৮০০০০ টাকা।
বিক্রিত পণ্য ফেরত আসল ৬০০ টাকা।
যদি কোনো লেনদেন না বোঝেন, টেবিলে ঐ লেনদেনের ক্রমিক নং কলামে ক্লিক করলে ঐ লেনদেনের বিস্তারিত আসবে।
ক্র: নং সংশ্লিষ্ট হিসাব হিসাব সমীকরনের প্রভাব (A=L+OE)
রহিম(দেনাদার) হিসাব 
বিক্রয় হিসাব
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
নগদান হিসাব
বিক্রয় হুসাব
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
ব্যাংক হিসাব
বিক্রয় হিসাব
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
নগদান হিসাব
বিনিয়োগের সুদ
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
ব্যাংক হিসাব
দেনাদার হিসাব
বিক্রয় হিসাব
A বৃদ্ধি
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
নগদান হিসাব
কমিশন প্রাপ্তি
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
নগদান হিসাব
শিক্ষানবিশ সেলামি
A বৃদ্ধি
OE বৃদ্ধি
নগদান হিসাব
মোটরসাইকেল হিসাব
A বৃদ্ধি
A হ্রাস
বিক্রয় হিসাব
বিক্রয় ফেরত
OE হ্রাস
A হ্রাস
যদি কেনো ভুল ত্রুটি থাকে আমাদের জিমেইল এ তথ্যটি জানান। যথাসম্ভব আমরা আপনার মেইলের রিপ্লাই দিব ও ভুল থাকলে সঠিক করব।
Gmail: businessteam212@gmail.com
রহিম এর নিকট পণ্য বিক্রয় ৩০০০ টাকা।

এখানে দেনাদার হিসাব অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এর কারণ হল যখন কোনো ক্রয় বা বিক্রয় এর নেলদেনে নগদ উল্লেখ না থেকে কোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যাক্তির নাম উল্লেখ থাকে তখন ঐ লেনদেনটি বাঁকিতে ধরে নেওয়া হয়। যেহেতু বাকিতে হয়েছে তাই দেনাদার হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হল।

অপরদিকে পণ্য বিক্রয় করায় আয় বৃদ্ধি পেল। অর্থাৎ OE বৃদ্ধি পেল।

রায়হান এর কাছে নগদে পণ্য বিক্রয় ৪০০০ টাকা।

এখানে প্রতিষ্ঠানের নাম বা ব্যাক্তির নাম থাকা স্বত্বেও নগদান হিসাব অন্তর্ভুক্ত করা হল। তাই A(নগদ) বৃদ্ধি পেয়েছে।

অপরদিকে বিক্রয় করায় ব্যবসায়ে আয় হল। অর্থাৎ OE বৃদ্ধি পেয়েছে।

পণ্য বিক্রয় করে চেক প্রাপ্তি ১৬০০ টাকা।

এখানে বিক্রয় করে চেক পেল, মানে বিক্রয়ের টাকা গুলো ব্যাংক একাউন্টে জমা হলে গেল। অর্থাৎ ব্যাংক হিসাব বৃদ্ধি পেল, মানে A বৃদ্ধি পেল।

অপরদিকে বিক্রয় করায় ব্যবসায়ে আয় বৃদ্ধি পেল। অর্থাৎ মালিকানা স্বত্ব (OE) বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিনিয়োগের সুদ প্রাপ্তি ২০০০ টাকা।

এখানে বিনিয়োগের করার ফলে মুনাফা পেয়েছে। মানে ব্যবসায়ে নগদ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে তাই A (নগদ) বৃদ্ধি পেয়েছে।

অপরদিকে বিনিয়োগের সুদ পেয়েছে, মানে ব্যবসায়ে আয় হয়েছে। অর্থাৎ আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। মানে OE বৃদ্ধি পেয়েছে।

পণ্য বিক্রয় ৭০০০ টাকা, যার মধ্যে ৫০% টাকা চেকে। অবশিষ্ট টাকা বাকিতে।

এখানে পণ্য বিক্রয়ের মাধ্যমে ৫০% টাকার চেক পেল, মানে ঐ পরিমাণ টাকা ব্যাংকে টাকা জমা হল। তাই A(ব্যাংক) বৃদ্ধি পেয়েছে।

আবার ৫০% টাকা এখনো বাকি রয়ে গেছে, মানে দেনাদার হিসাবে রয়ে গেছে। যেহেতু দেনাদার একটি সম্পদ। তাই আবার A(দেনাদার) বৃদ্ধি পেল।

অপরদিকে চেকে ও বাকিতে(সম্পূর্ণ) টাকা বিক্রয় হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হবে। যেহেতু আয় বেড়ে গেছে তাই OE বৃদ্ধি পেয়েছে।

কমিশন প্রাপ্তি ৮০০ টাকা।

এখানে কমিশন পাওয়ায় ব্যবসায়ে নগদ টাকা এসেছে। মানে ব্যবসায়ে নগদ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে তাই A (নগদ) বৃদ্ধি পেয়েছে।

অপরদিকে কমিশন প্রাপ্তি ব্যবসায়ের আয় হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। অর্থাৎ আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। সুতরাং OE বৃদ্ধি পেয়েছে।

শিক্ষানবিশ সেলামি ১৩০০ টাকা।

এখানে শিক্ষানবিশ সেলামি টা প্রতিষ্ঠান বা কারবার পেয়ে থাকে। মানে এটার ফলে ব্যবসায়ে নগদ অর্থ বৃদ্ধি পায়। সুতরাং A(নগদ) বৃদ্ধি পেয়েছে।

অপরদিকে, যেহেতু শিক্ষানবিশ সেলামি ব্যবসায়ে নগদ অর্থ আসে, অবশ্যই সেটা আয় হবে। সুতারং OE(আয়) বৃদ্ধি পেয়েছে।

ব্যবসায়ে ব্যবহিত মোটরসাইকেল বিক্রয় ১২০০০০ টাকা।

এখানে পুরাতন মোটরসাইকেল বিক্রয় করায় ব্যবসায়ে নগদ টাকা আসল। মানে নগদান হিসাব A বৃদ্ধি পেল।

অপরদিকে ব্যবসা থেকে ঐ মোটরসাইকেল টা চলে গেল। যা ব্যবসায়ের একটি সম্পদ। তাই আবার A(মোটরসাইকেল) হ্রাস পেয়েছে।

বাকিতে বিক্রিত পণ্য ফেরত আসল ৬০০ টাকা।

এখানে যেহেতু পণ্য আগে বিক্রয় করেছে। সাথে সাথে সেটা বিক্রয় হিসাব আর দেনাদার হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হল। এখন পণ্য ফেরত আসায় বিক্রয় হিসাব থেকে এ পরিমাণ টাকা বাদ দিতে হবে। বিক্রয় কমে যাবে মানে আয় ও কমে যাবে বা OE হ্রাস পেয়েছে (যেহেতু বিক্রয় হিসাব হল আয়)।

অপরদিকে, একই কারণে দেনাদার হতে ফেরত পণ্যের টাকা বাদ দিতে হবে। A(দেনাদার) হ্রাস পাবে(যেহেতু দেনাদার একটি সম্পদ)।

No comments:

Post a Comment